মঙ্গলবার, ২৫-জুন ২০১৯, ০২:০১ পূর্বাহ্ন
  • জাতীয়
  • »
  • ঢাকা ওয়াসাকে দুই ভাগ করার প্রস্তাব সংসদীয় কমিটির 

ঢাকা ওয়াসাকে দুই ভাগ করার প্রস্তাব সংসদীয় কমিটির 

Sheershakagoj24.com

প্রকাশ : ১৬ মে, ২০১৯ ০৮:৩১ অপরাহ্ন

শীর্ষকাগজ, ঢাকা: নগরীর পানি সমস্যা নিয়ে আলোচনার জন্য ঢাকা ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) তাকসিম এ খানকে ডেকেছিলো অনুমিত হিসাব সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি। কিন্তু তিনি এতে সাড়া দেননি। এ কারণে ক্ষোভ ও অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন কমিটির সদস্যরা।

তারা বৈঠকে উপস্থিত স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিবের কাছে এমডির অনুপস্থিতির কারণ জানতে চাওয়া হয়েছে।

জবাবে সচিব বলেন, ‘আমার মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে ওনাকে (এমডি) পত্রের মাধ্যমে জানানো হয়। একইসঙ্গে, টেলিফোনেও বিষয়টি অবহিত করা হয়েছে। তারপরেও কেনো তিনি বৈঠকে অনুপস্থিত জানিনা’।

পরে কমিটির সদস্যরা ক্ষোভ জানিয়ে পরবর্তী বৈঠকে ওয়াসার এমডির উপস্থিতি নিশ্চিত করার জন্য বলেন।

তারা বলেন, ওয়াসার এমডি যদি মনে করেন তিনি সংসদ এবং সংসদীয় কমিটিকে আমলে নেবেন না। তাহলে বিষয়টি প্রয়োজনে প্রধানমন্ত্রী এমনকি স্পিকারকেও অবহিত করা হবে।

বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত কমিটির বৈঠকে এ ঘটনা ঘটে। কমিটির সভাপতি উপাধ্যক্ষ মো. আব্দুস শহীদ এতে সভাপতিত্ব করেন।

বৈঠক শেষে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ‘ঢাকা ওয়াসার এমডিকে নিয়ে অনেক বিতর্ক হল এতদিন। এ জন্য ওয়াসার বিষয়ে তার কাছে জানার জন্য সংসদীয় কমিটিতে ডাকা হয়েছিল। কিন্তু তিনি না আসায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন কমিটির সদস্যা’।

উপাধ্যক্ষ শহীদ বলেন, সংসদ এবং সংসদীয় কমিটিকে উপেক্ষা করার কোনো সুযোগ নেই। ওয়াসার এমডিকে অবশ্যই বৈঠকে এসে জবাবদিহি করতে হবে। তিনি বলেন, সুপেয় পানি মানুষের অধিকার। ওয়াসাকে এই অধিকার নিশ্চিত করতে হবে।

জানা গেছে, বৈঠকে সিটি কর্পোরেশনের মতো এবার ঢাকা ওয়াসাকে দুই ভাগ করার প্রস্তাব দিয়েছে সংসদীয় কমিটি। ঢাকাবাসীকে সুপেয় পানির সরবরাহ নিশ্চিত করার লক্ষ্যে উত্তর-দক্ষিণ ভাগ করে সেবা বৃদ্ধির এই প্রস্তাব করেছে তারা।

এছাড়াও স্থানীয় সরকার বিভাগের আওতাধীন বেশ কিছু প্রকল্পের অগ্রগতি নিয়ে কমিটির সদস্যরা অসন্তোষ প্রকাশ করেন। আগামী ৩০ জুনের মধ্যে এসব প্রকল্পের বাস্তবতা নিয়ে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।

বিশেষ করে স্থানীয় সরকার বিভাগ ও জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদফতর আওতাধীন গৃহীত প্রকল্পের বিষয় আগামী দুই মাসের মধ্যে মূল্যায়ন রিপোর্ট প্রদানের জন্য কমিটি সুপারিশ করে।

বৈঠকে ঢাকার বাইরের সিটি কর্পোরেশনের কোন কর্মকর্তা বৈঠকে উপস্থিত না হওয়ায় কমিটির সদস্যরা ক্ষোভ প্রকাশ করেন। তারা কেন উপস্থিত হতে পারেনি তার ব্যাখ্যাসহ আগামী বৈঠকে উপস্থিত থাকার বিষয়টি নিশ্চিত করার জন্য মন্ত্রণালয়কে কমিটি সুপারিশ করে।

জানা গেছে, বৈঠকের শুরুতেই ঢাকা ওয়াসা নিয়ে আলোচনা হয়। এসময় কমিটির সভাপতি উপাধ্যক্ষ আবদুস শহীদ, সদস্য নুর-ই-আলম চৌধূরী ও ফজলে নুর তাপস মন্ত্রণালয়ের সচিবের কাছে ওয়াসার এমডির অনুপস্থিতির কারণ জানতে চান।

জবাবে সচিব বলেন, তাকে সব ভাবে উপস্থিত হওয়ার জন্য বার্তা দিলেও তিনি কেন আসেননি তার প্রকৃত কারণ তিনিই বলতে পারবেন।

কমিটির সদস্য নুর-ই-আলম চৌধুরী, শেখ ফজলে নূর তাপস, আহসান আদেলুর রহমান এবং ওয়াসিকা আয়শা খান বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন। 
শীর্ষকাগজ/এসএসআই