শনিবার, ২৪-আগস্ট ২০১৯, ০৮:১৬ পূর্বাহ্ন
  • বিনোদন
  • »
  • টাকা না থাকায় দরজা বন্ধ করে কাঁদতেন পরিণীতি

টাকা না থাকায় দরজা বন্ধ করে কাঁদতেন পরিণীতি

shershanews24.com

প্রকাশ : ০৬ আগস্ট, ২০১৯ ০৫:৩৪ অপরাহ্ন

শীর্ষনিউজ ডেস্ক: বলিউড অভিষেকেই সাফল্য ধরা দেয় পরিণীতি চোপড়ার হাতে। পরপর কয়েকটি হিটের পর দুটি ছবি ব্যর্থ হয় বক্স অফিসে। যার কারণে হঠাৎ লাইমলাইটের আড়ালে চলে যান নায়িকা।

সেই অসহনীয় মুহূর্ত নিয়ে পরিণীতি কিছুদিন আগে মুখ খুলেছেন। জানালেন, খুবই ভেঙে পড়েছিলেন।  

পরিণীতি বলেন, “২০১৪ সালের শেষ থেকে গোটা ২০১৫ সাল। খুব খারাপ কেটেছিল আমার জীবনে। আমার দুটি ছবি ‘কিল দিল’ ও ‘দাওয়াত-ই-ইশক’ একেবারেই ব্যবসা করেনি। হঠাৎ করেই দেখলাম হাতে টাকা নেই।”

সঙ্গে যোগ করেন, “তখন একে তো প্রেম ভাঙার যন্ত্রণা, অন্যদিকে নিজের বাড়ি কেনায় অনেক টাকা খরচ হয়ে গিয়েছিল। জীবনে ইতিবাচক কিছুই ছিল না যেন।”

প্রতিদিনের রুটিন হয়ে গিয়েছিল এক রকম। পরিণীতি বলেন, “খাওয়া-দাওয়া বন্ধ করে দিয়েছিলাম। কারো সঙ্গে কথা বলতাম না, দেখা করতাম না। সারা দিন নিজেকে ঘরে বন্দী করে রাখতাম। টিভি দেখতাম, ঘুমাতাম... জম্বির মতো হয়ে গিয়েছিলাম যেন। সিনেমার হতাশ মেয়ের মতো হয়ে গিয়েছিলাম। বারবার অসুখে পড়ছিলাম। ৬ মাস মিডিয়ার থেকে নিজেকে এক্কেবারে দূরে রেখেছিলাম। দিনে অন্তত দশবার কাঁদতাম।”

প্রেমে ব্যর্থতা সম্পর্কে বলেন, “সেই সময় পর্যন্ত জীবনে কোনো ব্যর্থতা দেখিনি। তাই ওই ধাক্কাটা আমার জন্য খুব বড় ছিল। তবে ওটাই প্রথম ও শেষ। জীবনটা কেমন ওলট পালট হয়ে গিয়েছিল। কিন্তু আজ বুঝি ওই ঘটনা আমাকে কতটা অভিজ্ঞ ও পরিপক্ব করেছে। খোদার কাছে কৃতজ্ঞ জীবনের শুরুতেই এমন একটি অভিজ্ঞতার মুখোমুখি আমাকে দাঁড় করানোর জন্য।”

৩০ বছর বয়সী এই অভিনেত্রীকে শেষ দেখা গিয়েছিল ‘কেশরি’তে। এতে তার নায়ক ছিলেন অক্ষয় কুমার। ৯ আগস্ট মুক্তি পাবে পরের সিনেমা ‘জাবারিয়া জোড়ি', এতে পরিণীতির বিপরীতে দেখা যাবে সিদ্ধার্থ মালহোত্রাকে।
শীর্ষনিউজ /এসএসআই